হাটহাজারীতে এক কিশোরীকে ধর্ষণ করেছে পরিবহন শ্রমিক

 

হাটহাজারীতে ১৫ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণ করেছে পরিবহন শ্রমিক।

করোনা ভাইরাসের ভয় দেখিয়ে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে হাটহাজারী দ্রুতযান পরিবহন বাসের হেলপার জুয়েল (২৫)।

গত পহেলা বৈশাখ চট্টগ্রাম হাটহাজারী পৌরসভার ১১মাইল পূর্ব দেওয়াননগর করিম কলোনীতে ঐ কিশোরীকে বাড়িতে একা পেয়ে একই কলোনী আব্দুল খায়ের এর পুত্র মো. জুয়েল জোর পূর্বক ধর্ষণ করে।

পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে কলোনীর কয়েকজন ব্যক্তির মাধ্যমে এক লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা বলে ধর্ষণে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়। কোর্টে মামলা দিলে হত্যা করার হুমকি দেয় তারা। এবং ভোক্তভুগিদের ওই কলোনী থেকে ঐ দিনেই বের করে দেয় কলোনী জমিদার করিম মিয়া।

নিরুপায় হয়ে ৩ মে রবিবার, ঐ কিশোরীর মা হাটহাজারী মডেল থানায় এসে ৯(১) ধারায় একটি ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের ভিত্ততিতে থানার দায়িত্বরত পুলিশ অফিসার ধর্ষক জুয়েল কে সন্ধ্যায় আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

হাটহাজারী মডেল থানা সূূূত্রে জানা, কিশোরীকে করোনায় ভয় দেখিয়ে জোর পূর্বক তার বসত ঘরে ধর্ষণ করে আসামী জুয়েল। অভিযোগের প্রেক্ষিতে জুয়েল কে আটক করা হয়। আগামীকাল তাকে আদালতে প্রেরণ করা হবে৷