সাংবাদিক লাঞ্ছিতের অভিযোগে পুলিশের এসআই প্রত্যাহার

 

 

নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়ায় স্থানীয় একটি পত্রিকার সম্পাদককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে সদর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবুল বাশারকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বুধবার (৩১ আগস্ট) রাত ১১টার দিতে তাকে প্রত্যাহার করা হয়। সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, রাত সোয়া ১০টায় শহরের চাষাঢ়ায় খাজা সুপার মার্কেটের নিচে ফুটপাতের একটি চায়ের দোকানে চা পান করছিলেন স্থানীয় দৈনিক ভোরের কথা সম্পাদক আরিফুর রহমান। এ সময় পুলিশের গাড়িতে করে এসে মডেল থানার এসআই আবুল বাশার চায়ের দোকান দ্রুত বন্ধ করতে বলেন। ওই সময়ে আরিফুর রহমান চা পান শেষ করে হকার উচ্ছেদের কথা বলেন। একইসঙ্গে তিনি রাত করে কেন হকার উচ্ছেদ করা হচ্ছে জানতে চান। তখন গাড়ি থেকে নেমে এসআই আবুল বাশার আরিফুর রহমানকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও গালাগাল করেন।

আশপাশের লোকজন আরিফুরকে সম্পাদক পরিচয় দেওয়ার পর আরো চড়াও হন এসআই বাশার। এ সময় লোকজনের ভিড় বাড়লে এসআই ওই স্থান ত্যাগ করেন।

বিষয়টি জানাজানি হলে গণমাধ্যমকর্মীরা এসে এসআই বাশারকে দায়ী করে তার শাস্তি দাবিতে বিক্ষোভ করেন। এতে ওই এলাকায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে সদর মডেল থানার ওসি আসাদুজ্জামান ও পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে আসেন।

এ সময় ওসি আসাদুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় এসআই বাশারকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত করে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ওসির আশ্বাসে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

ভোরের কথা সম্পাদক আরিফুর রহমান জানান, সাংবাদিক হিসেবে আমি পুলিশের কাছে হকার উচ্ছেদের বিষয়টি জানতে চাই। কিন্তু আমার পরিচয় না জেনেই লাঞ্ছিত ও গালাগাল করেন ওই এসআই।