শনিবার বাংলাদেশ উপকূল অতিক্রম করতে পারে ঘূর্ণিঝড় “নাডা”

weather

ভারত হয়ে বাংলাদেশে ধেয়ে আসছে ‘নাডা’। যত এগুচ্ছে, শক্তি সঞ্চয় করে আরও গতি বাড়াচ্ছে বাংলাদেশমুখী এ গভীর নিম্নচাপটি। শনিবারের মধ্যে বাংলাদেশের মধ্য উপকূলবর্তী এলাকায় প্রায় ৬০ কিলোমিটার গতিবেগে এ ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়তে পারে।

বাংলাদেশে আসার পথে অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িষ্যা উপকূল ঘেঁষে আসতে হবে ‘নাডা’কে। ফলে ওই উপকূলবর্তী এলাকাতেও তার অনেকটাই প্রভাব পড়বে। এতে প্রবল ক্ষতির আশঙ্কা কমবে। এরই মধ্যে নাড়া’র প্রভাবে বৃহস্পতিবার থেকেই বৃষ্টি শুরু হয়েছে।

নিম্নচাপ ঘনীভূত হওয়ায় শীতও কিছুটা থমকে গেছে। এর প্রভাবে আর্দ্রতা বেড়ে আবহাওয়া উষ্ণ হতে শুরু করেছে।

শুক্রবারের মধ্যে ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিয়ে নিম্নচাপটি অন্ধ্র উপকূল হয়ে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তার মুখ ঘুরে যাবে বাংলাদেশ উপকূলের দিকে। যার জেরে ভারত মহাসাগর ও বঙ্গোপসাগরের মধ্যবর্তী এলাকায় সমুদ্রে তীব্র জলোচ্ছ্বাস দেখা দেবে।

বাংলাদেশে আছড়ে পড়ার পর এ ঘূর্ণিঝড় মণিপুর, মিজোরাম হয়ে ত্রিপুরার দিকে চলে যাওয়ার কথা। এ পরিস্থিতিতে আবহাওয়া অধিদফতর জেলে-মাঝিদের সমুদ্রে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

আবহাওয়ার এ পরিবর্তনের জেরে অনেকেই বড়সড় ক্ষতির শঙ্কা প্রকাশ করেছেন। তবে ঘূর্ণিঝড় হলেও তা কোনো বিধ্বংসী চেহারা নিতে পারবে না। ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে প্রবল বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

রোববার থেকে আকাশ পরিষ্কার হলেও মাঝে-মধ্যে বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।