লঞ্চডুবির ঘটনায় নারী-শিশুসহ এখন পর্যন্ত ২৮ জনের লাশ উদ্বার

 

রাজধানীর বুড়িগঙ্গা নদীতে একটি যাত্রাবাহী লঞ্চ ডুবির ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ২৮ জনের মরদেহ উদ্বার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

এদের মধ্যে ১৮ জন পুরুষ,৭ জন মহিলা ও ৩ জন শিশু রয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের পরিচয় জানা যায়নি।

উদ্বার অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়।

আজ সোমবার দুপুর সোয়া ১ টার দিকে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সদর দফতরের ডিউটি অফিসার রোজিনা আক্তার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ফরাশগঞ্জ-শ্যামবাজার লঞ্চ ঘাটে কুমিল্লা ডক এরিয়ার পাশে লঞ্চটি ডুবে যায়।

পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে উদ্ধার অভিযান শুরু করে।

ফায়ার সার্ভিসের এই কর্মকর্তা আরও জানান, সকালে মুন্সীগঞ্জের কাঁঠপট্টি এলাকা থেকে ৫০ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকার সদরঘাটের উদ্দেশে মনিং বার্ড নামের লঞ্জটি ছেড়ে আসে।

লঞ্চটি ফরাশগঞ্জ ঘাটে এসে পৌঁছালে পেছন দিক থেকে ঢাকা-চাঁদপুর রুটের ময়ূর-২ নামে অপর একটি লঞ্চ ধাক্কা দিলে মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায়।

এসময় লঞ্চটির কয়েকজন যাত্রী সাঁতরে তীরে উঠলেও অধিকাংশ যাত্রী ডুবে যায় ।

এ পর্যন্ত ২৮ জনের মরদেহ উদ্বার করা সম্ভব হলেও এখনও অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজদের উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের উদ্ধার অভিযান চলছে। খবর বাসস ।

 

Do NOT follow this link or you will be banned from the site!