ভারতেও ইন্টারনেটে সেন্সর: বন্ধ হতে পারে পর্ন সাইট

porn-file-3--655x360

চিন-ইরানের মত এবার এ দেশের ইন্টারনেট পরিষেবার উপরেও নেমে আসতে চলেছে সেন্সরের কোপ। দেশের অভ্যন্তরে এমন বেশ কিছু ওয়েবসাইট এই সেন্সরের কোপে বন্ধ হতে পারে। এমনটাই জানাচ্ছে ‘মিডিয়ানামা’ নামের একটি ওয়েবসাইট।

মিডিয়ানামা সূত্রে খবর, কেন্দ্রীয় টেলিকমমন্ত্রী রবি শঙ্কর প্রসাদের সঙ্গে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারদের এক বৈঠকে এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।

সূত্রের খবর, ‘ন্যাসকম’-এর আধিকারিকরা বৈঠকে পর্ন সাইট-সহ আরও বেশ কিছু আপত্তিজনক সাইট বন্ধ করার প্রস্তাবটি তোলেন। দেশের সংস্কৃতিকে অসম্মান করে, এমন কিছু বিষয়বস্তু যে যে সাইটে রয়েছে, সেগুলিকে ‘ব্লক’ করতে কেন্দ্রকে অনুরোধ করেন তারা। টেলিকমমন্ত্রী সেই অনুরোধ খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন।

ওই বৈঠকের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কর্তারা জানিয়েছেন, দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তাকে প্রশ্নের মুখে ফেলে দেয় এমন বেশ কিছু ওয়েবসাইটের উপর নজর রাখছেন। সেগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে। পাশাপাশি তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রক একটি ন্যাশনাল মিডিয়া সেন্টার খুলতে চলেছে যার মাধ্যমে ২৪ ঘণ্টা বিভিন্ন ওয়েবসাইটের বিষয়বস্তুর উপর নজরদারি চালানো হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের এই উদ্যোগ নতুন নয় অবশ্য। এর আগেও বেশ কিছু তথ্য আদানপ্রদানকারী ওয়েবসাইট বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র। অভিযোগ, ওই সাইটগুলিতে কপিরাইট আইন মানা হচ্ছিল না। পাশাপাশি এ দেশে বেশ কিছু পর্ন সাইটও বন্ধ করে সরকার। যদিও ব্যক্তিগত পর্যায়ে বাড়িতে বসে পর্ন দেখা এ দেশে বেআইনি নয়। তারউপর অধিকাংশ পর্ন সাইটই নিয়ন্ত্রিত হয় বিদেশ থেকে। সেগুলি বন্ধ করাটা আইনত জটিল ও সময়সাপেক্ষ।

বিশ্বের যত দেশ রয়েছে তার মধ্যে গুগল ও ফেসবুকের ব্যবহারকারীর সংখ্যা এদেশে শীর্ষ তালিকায়। পাকিস্তানের চেয়েও এ দেশে ফেসবুক ব্যবহারকারী বেশি।