ভাগীনার হাত ধরে পালিয়ে গেলেন মামী!

ssaa4

সোনাগাজীতে ভাগিনার হাত ধরে সাফিয়া খাতুন রোমানা (৩০) নামে এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। বৃস্পতিবার গৃহবধুর শাশুড়ী মরিয়ম বেগম পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সোনাগাজী উপজেলার কদমতলা ছৈয়দনগর এলাকার সৌদি প্রবাসী আবদুল শুক্কুরের সাথে দশ বছর আগে উপজেলার চর খোয়াজ এলাকার আবদুর রবের মেয়ে বিবাহবন্দনে আবদ্ধ হন। তাদের ঘরে আবদুল্লাহ আল নোমান নামে ১০ বছরের একটি ছেলে রয়েছে। কিন্তু সুখের সংসারে বিষ ঢালে ভাগিনা শিপন। পারিবারিক অসহায়ত্বের কারণে দীর্ঘদিন থেকে লেখাপড়া ও লালন পালনের জন্য নানার বাড়ীতে অবস্থান করছে সোনাগাজী উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়নের মুন্সি মিয়ার ছেলে রেজাউল করিম শিপন (২৪)। মামা আবদুল শুক্কুর সৌদিতে থাকার সুবাদে মামী রোমানার সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি রোমানার মা-বাবাকে একাধিকবার জানানোর পরও কোন কাজ হয়নি। পরবর্তীতে ৭ জুন সকালে ১৫ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, নগদ ৫ লাখ ৮০ হাজার টাকা, ৫০ হাজার টাকা মূল্যের কাপড়-ছোপড় ও ৩০ হাজার টাকা মূল্যের বিদেশী মোবাইল ফোনসহ ১৩ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। সামাজিক লোক লজ্জার ভয়ে দীর্ঘদিন মুখ না খুললেও রোমানা-শিপন নারী নির্যাতন ও যৌতুকের মামলা দায়েরসহ নানা হুমুক-ধমকি দিয়ে আসছে। এ ব্যাপরে সাপিয়া খাতুন রোমানা (৩০), রেজাউল করিম শিপন (২৪), আনোয়ারা বেগম, জসিম, রাসেল ও আবদুর রবকে আসামী করে অভিযোগ দেন।

এ বিষয়ে মরিয়ম বেগম জানান, সুবিচারের জন্য জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি তিনি বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে সোনাগাজী মডেল থানাকে মামলা গ্রহণের নির্দেশ দেন।