বিজিবির জন্য ‘সীমান্ত ব্যাংক’ উদ্বোধন করে ঈদ শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী

PM

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যদের জন্য ‘সীমান্ত ব্যাংক লিমিটেড’র উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী। আজ ১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার,  বিজিবির প্রতিটি সদস্যের আনন্দের দিন। সামনে পবিত্র ঈদুল আজহা। আজ সীমান্ত ব্যাংক উদ্বোধন করলাম। এটা তাদের জন্য ঈদের শুভেচ্ছা বলে জানালেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকালে তিনি এ কথা জানান। অনুষ্ঠানের শুরুতেই ব্যাংকের কার্যক্রম উদ্বোধন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী।

বিজিবি সদরদফতরে ব্যাংকটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) ওপর অর্পিত দায়িত্ব বাহিনীটি সবসময়ই যথাযথভাবে পালন করেছে।

এরপর বক্তৃতায় তিনি বলেন, আজ বিজিবির প্রতিটি সদস্যের আনন্দের দিন। সামনে পবিত্র ঈদুল আজহা। আজ সীমান্ত ব্যাংক উদ্বোধন করলাম। এটা তাদের জন্য ঈদের শুভেচ্ছা।

শেখ হাসিনা বলেন, মুক্তিযুদ্ধে আমাদের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর অসাধারণ ভূমিকা রয়েছে। ঠিক যে মুহূর্তে নিরস্ত্র বাঙালির ওপর হামলা চালিয়েছিলো পাকিস্তানি হানাদাররা। ঠিক সেই মুহূর্তে জাতির পিতা স্বাধীনতার ঘোষণায় আমাদের সীমান্তরক্ষীরা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন। মুক্তিযুদ্ধে আমাদের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর অসংখ্য যোদ্ধা শহীদ হয়েছেন। ২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে এক বেদনাদায়ক ঘটনায় আমাদের এ বাহিনীর অনেক কর্মকর্তা শহীদ হয়েছেন। আজকের দিনে তাদের আমি স্মরণ করছি।

‘যে সময় যে দায়িত্বই দেওয়া হয়েছে, এ বাহিনী তার ওপর অর্পিত সব দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করেছে। আমরা অগ্নিসন্ত্রাস থেকে যে দেশের মানুষকে বাঁচাতে পেরেছি, সেক্ষেত্রেও আমাদের এ বাহিনী ভূমিকা রেখেছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের বিজিবি ও ভারতের বিএসফের মধ্যে ভালো সম্পর্ক তৈরি হওয়ায় এখন সীমান্তে নিহত হওয়ার ঘটনাও কমে এসেছে।