প্রত্যাবর্তনেই আইসিসি ইভেন্ট পরিচালনার দায়িত্ব পেল পাকিস্তান

অনেক বছর পর অবশেষে ‘আন্তর্জাতিক’ ক্রিকেট ফিরল পাকিস্তানে। আর এই প্রত্যাবর্তনের শুরুতেই আইসিসি ইভেন্ট পরিচালনার দায়িত্ব পেল পাকিস্তান।

আইসিসি ইভেন্ট হলেও এটা কার্যত দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর মতই। বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলার জন্য টি২০ বিশ্ব একাদশের নাম ঘোষনা করল আইসিসি।

তবে আইসিসির প্রকাশিত দলে সুযোগ পাননি কোনও ভারতীয় ক্রিকেটার। পাকিস্তানের মাটিতে খেলার বিষয় বিসিসিআইয়ের আপত্তির কারণেই বিশ্ব একাদশের দলে রাখা হয়নি কোনও ভারতীয় ক্রিকেটারকে এমনটাই দাবি করেছে কয়েকটি সুত্র।

আইসিসির বিশ্ব একাদশ দলের অধিনায়ক হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে ফাফ ডুপ্লেসিকে। ফাফ ছাড়াও বিশ্ব একাদশের দলে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে সুযোগ পেয়েছেন ডেভিড মিলার, হাসিম আমলা, মর্নি মর্কেল এবং ইমরান তাহির। অস্ট্রেলিয়া থেকে সুযোগ পেয়েছেন জর্জ বেলি, বেন কার্টিং, টিম পেইন। নিউজিল্যান্ড, বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কা থেকে সুযোগ পেয়েছেন গ্র্যান্ড এলিয়ট, তামিম ইকবাল এবং থিসারা পেরেরা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে দলে সুযোগ দেওয়া হয়েছে স্যামুয়েল বদ্রি এবং ডেরেন সামিকে।

উল্লেখযোগ্য ভাবে বিশ্ব একাদশের দলে সুযোগ পেয়েছেন প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক পল কলিংউড। ৪১ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর ছয় বছর পরও আইসিসির বিশ্ব একাদশে সুযোগ পেলেন কলিংউড ।