নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে বজ্রপাতে ৩৫ শিক্ষার্থী অসুস্থ

চট্টগ্রামে বজ্রপাতে ২ মহিলার মৃত্যু, আহত ২
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে বজ্রপাতে একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কমপক্ষে ৩০-৩৫ জন শিক্ষার্থী আতঙ্কে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। ৫ এপ্রিল, বুধবার দুপুরে উপজেলার চরপার্বতী ইউনিয়নের কদমতলা এ এস সি উচ্চবিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ২৫ জন অসুস্থ শিক্ষার্থীকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া বাকি শিক্ষার্থীরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছে বলে জানা গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. সেলিম বজ্রপাতে অসুস্থ অবস্থায় ২৫ জন শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে আনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা বজ্রপাতে ভয়ে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছিল। হাসপাতালের বহির্বিভাগের চিকিৎসায় তাঁরা অনেকটা সুস্থ হয়ে ওঠে। তাই কাউকে ভর্তি করা হয়নি।

বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মো. মনিরুজ্জামান প্রতিবেদককে বলেন, বেলা সোয়া দুইটার দিকে পাঠদান চলাকালে বৃষ্টির সঙ্গে হঠাৎ বিকট শব্দে একটি বজ্রপাত বিদ্যালয়ের টিনশেড ঘরের ওপর পড়ে। এতে শ্রেণিকক্ষে থাকা শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১০-১২ জন মূর্ছা যায়। এরপর একে একে প্রায় ৩০-৩৫ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়ে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ ফজলে রাব্বী বজ্রপাতে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হয়ে পড়ার ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, অসুস্থ শিক্ষার্থীদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে এতে প্রাণহানির কোনো ঘটনা ঘটেনি।

 

সুত্র- /বিডি/এম