ধূমপান ও উচ্ছৃঙ্খলতায় বাঁধা অতপর শিক্ষকের হাত-পা ভাঙল ছাত্ররা

 

মাগুরায় গণিত বিষয়ের এক শিক্ষককে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দিয়েছে বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্ররা। ওই শিক্ষককে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত শ্রীরামপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রদ্যুৎ কুমার জানান, বৃহস্পতিবার মেহেরপুরের মুজিবনগরে শিক্ষাসফর শেষে ফেরার পথে ছাত্ররা গাড়িতে ধূমপান ও উচ্ছৃঙ্খলতা করে। এ নিয়ে আজ শনিবার সকালে স্কুলে ছাত্রসমাবেশে ওই ছাত্রদের অভিভাবকসহ বিদ্যালয়ে হাজির হতে বলেন তিনি। বিদ্যালয় ছুটির পর বোয়ালিয়া মাঠের ভেতর দশম শ্রেণির ছাত্র রাব্বী হোসেন, আলামিন, আজিম উদ্দিন ও সুজন তাঁর মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে পিটিয়ে হাত ও পা ভেঙে দেয়। পরে পথচারীরা তাঁকে উদ্ধার করে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। মাগুরা সদর হাসপাতালে শ্রীরামপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সম্বরণ কুমার বিশ্বাস বলেন, শনিবার বিদ্যালয় ছুটির পর বিদ্যালয়ের গণিত শিক্ষক প্রদ্যুৎ কুমার বিশ্বাসকে বোয়ালিয়া মাঠের ভেতর দশম শ্রেণির ছাত্ররা পিটিয়ে আহত করেছে এ সংবাদ পেয়ে হাসপাতালে এসেছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছাত্রদের অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক আমর প্রসাদ জানান, আহত শিক্ষককে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তাঁর ডান হাত ও বাঁ পা ভেঙে গেছে। এ ব্যাপারে মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজমল হুদা জানান, ছাত্ররা এক শিক্ষককে পিটিয়ে আহত করেছে। তিনি বর্তমানে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন। অভিযোগ পেলেই এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।