ঢাবিতে লাশ ফেলার চক্রান্ত চলছে: আরেফিন সিদ্দিক

 

একটি বিশেষ রাজনৈতিক মহল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) লাশ ফেলার চক্রান্ত করছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র সংগঠনকে নেতৃত্ব দেওয়া ছাত্রদের বক্তব্যের সমালোচনা করে বলেন, ‘যদি তাদের বক্তব্যে শোনা যায় যে, প্রয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েকটি ডেড বডি (লাশ) ফেলা যায়, এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক।’ বুধবার সকালে পঞ্চগড় সার্কিট হাউসে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ঢাবি উপাচার্য এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের মতো দেশে একটা বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনা করা বা যেকোনো প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করা অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে করতে হয়।’ আমাদের দেশে রাজনীতিতে একটি মহল অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্র করছে উল্লেখ করে এসময় তিনি বলেন, পৃথিবীর কোনো দেশে দেখা যাবে না, একটা বিশ্ববিদ্যালয় চলছে, সেটাকে বন্ধ করা, সেটাকে ক্ষতিগ্রস্ত করা, শিক্ষাব্যবস্থাকে একটা বিপর্যয়ের মধ্যে ফেলে দেওয়া—এটা কিন্তু দেখা যাবে না।’ ‘কিন্তু আমরা দেখি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো বিশ্ববিদ্যালয়কে অচল করা, বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রম যাতে চলতে না পারে, সে জন্য ষড়যন্ত্র, চক্রান্ত করা—এগুলো কিন্তু প্রতিনিয়ত আমরা লক্ষ করি’, বলেন উপাচার্য। তিনি আরো যোগ করেন, ‘এমনকি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র, যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংগঠনকে নেতৃত্ব দিয়েছে, তাদের বক্তব্য যদি শোনা যায়, যে প্রয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েকটি ডেড বডি (লাশ) ফেলা যায়, এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক।’ মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পঞ্চগড়ের পুলিশ সুপার (এসপি) মো. গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহীন রেজা, এনডিসি বিকাশ বিশ্বাস, পঞ্চগড় প্রেসক্লাবের সভাপতি এ রহমান মুকুল, সাংবাদিক শহীদুল ইসলাম শহীদসহ জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিরা।