জিয়াউর রহমান বেঁচে থাকলে খালেদাকে তালাক দিতেন

hasan-mahmud-b20150618150824

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘পবিত্র রমজান মাসে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মিথ্যাচার অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করেছেন। জিয়াউর রহমান বেঁচে থাকলে মিথ্যাচারের জন্য তিনি বেগম খালেদাকে তালাক দিতেন’।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘পেট্রোলবোমা মেরে জীবন্ত মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে মেরে বেগম খালেদা জিয়া যে জঙ্গি নেত্রীতে পরিণত হয়েছিলেন, আমরা ভেবেছিলাম পবিত্র রমজান মাসে তিনি সেখান থেকে বেরিয়ে আসবেন।
কিন্তু তার মিথ্যাচার রমজান মাসে অতীতের সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। ইফতারির সময় মিথ্যা বলা, গিবত করা ইসলামে নিষিদ্ধ হলেও তিনি প্রতিদিনই তা করে চলেছেন। মিথ্যাচারের জন্য অলিম্পিকের মত কোন পুরস্কার থাকলে তিনি হতেন (খালেদা জিয়া) তার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন।’
হাছান মাহমুদ বলেন, ‘খালেদা জিয়া শুধু পুলিশদের নিয়েই মিথ্যাচার করছেন না, বিচার বিভাগ নিয়েও কটু কথা বলছেন। বিচার বিভাগের সম্মান সমুন্নত রাখার জন্য অবিলম্বে বিচার বিভাগের খালেদা জিয়ার বিচারের ব্যবস্থা করা উচিত। এ জন্য সুপ্রিম কোর্টের উচিত নিজ উদ্যোগে খালেদা জিয়ার বিচারের ব্যবস্থা করা।’
‘বিএনপির দুর্দশার জন্য বিএনপি নেতারা দায়ী না, খালেদা জিয়া দায়ী’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘যখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, তখন খালেদা জিয়া যিনি শেখ হাসিনার পতন না ঘটিয়ে ঘরে ফিরবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি ঘরে ফিরেছেন। কিন্তু শেখ হাসিনার পতন ঘটেনি। নিজের ও নিজের দলের পতন ঘটিয়ে তিনি ঘরে ফিরেছেন।’
হাছান মাহমুদ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ আজ শুধু খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ দেশ নয়, খাদ্য উদ্বৃত্ত দেশে পরিণত হয়েছে। বন্যা, খরা, ঝড়, বৃষ্টি সব ধরণের প্রতিকূলতা মোকাবেলা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।১৬ কোটি মানুষের দেশে এখন ১২ কোটি মানুষ মোবাইল ফোন ব্যবহার করছে। বাংলাদেশের মোবাইল ব্যাংকিং ভারতসহ বহিঃবিশ্বে অনুকরণীয় হচ্ছে।’