কানাডায় গাঁজা ব্যবহার উন্মুক্ত হচ্ছে

Canada

প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর অঙ্গীকারের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে কানাডায় মারিজুয়ানা বা গাঁজা সেবনকে বৈধতা দিতে আইন প্রণয়নের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেন ফিলপট পার্লামেন্টে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আগামী বছর থেকে গাঁজা সেবন ও বিক্রিকে বৈধতা দিতে পার্লামেন্টে বিল উত্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে এখনও আইনের খসড়া করা হয়নি। তবে প্রস্তাবিত আইনের সমালোচনা করেছেন পার্লামেন্ট সদস্যদের অনেকে।

গাঁজার বৈধতা নিয়ে পার্লামেন্টের ওই আলোচনার সময় কয়েকশো গাঁজাসেবী পার্লামেন্ট ভবনের বাইরে সমাবেশ করছিলেন। ক্ষমতায় আসার আগে নির্বাচনী প্রচারণাতেই প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো গাঁজা বৈধতার অঙ্গীকার করেছিলেন।

এ আইন প্রণয়ন হলে পশ্চিমা দেশগুলোর মধ্যে কানাডাই হবে অন্যতম বৃহৎ দেশ, যেখানে বিস্তৃত পরিসরে এই মাদকের ব্যবহার হতে যাচ্ছে। জেন ফিলপট তাই সতর্ক করে বলেছেন, গাঁজাকে শিশু ও অপ্রাপ্ত বয়স্কদের নাগালের বাইরে হবে। সেই সঙ্গে এর মুনাফা যেন অপরাধীদের ঘরে না যায় সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে।

তবে পার্লামেন্ট সদস্যদের অনেকে এই আইনের সমালোচনা করেছেন। তারা বলছেন, এই আইন গাঁজা সেবনকারীদের আরও উৎসাহিত করবে। কানাডার বিরোধী রক্ষণশীল দলের পার্লামেন্ট সদস্য জেরার্ড ডেলটেল বলেন, ‘এ আইনের ফলে তার দেশের নাগরিকদের স্বাস্থ্য খারাপ হয়ে যাবে।’ ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্সকে তিনি আরও বলেন, ‘সবচেয়ে খারাপ বিষয়টি হলো, এর মাধ্যমে কানাডার তরুণদের জন্য গাঁজার দরজা খুলে দেওয়া হলো।’

 

সূত্র:  রয়টার্স।