করোনা কমাবে ‘FabiFlu’, দাবি ভারতীয় বেসরকারি ওষুধ সংস্থার

 

ভারতে এই প্রথম কোনও বেসরকারি ওষুধ সংস্থা করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমাতে ওষুধ তৈরির দাবি করেছে ।

ইতিমধ্যেই ওষুধটির উৎপাদন ও বিপণনে মুম্বইয়ের ওষুধ সংস্থা গ্লেনমার্ককে অনুমোদন দিয়েছেন ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল।

‘FabiFlu’ নামে এই ওষুধ করনা সংক্রমণ কমাতে কার্যকরী ভূমিকা নিতে পারে বলে দাবি সংস্থাটির। তবে এবিষয়ে এখনই চূড়ান্ত কোনও সিদ্ধান্তে আসা সম্ভব নয় বলেই জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা।

গ্লেনমার্কের এই ‘FabiFlu’ নামে করোনার উপশমকারী প্রতি ট্যাবলেটের দাম ভারতীয়  ১০৩ রুপি । ৩৪টি ট্যাবলেটের একটি পাতার একত্রে দাম পড়বে ভারতীয় ৩৫০০ রুপি ।

সংক্রমিত ব্যক্তিকে চিকিৎসার প্রথম ধাপে ২০০ মিলিগ্রামের ট্যাবলেট একদিনে ৯টি ও পরের ১৪ দিনে ২০০ মিলিগ্রামের ট্যাবলেট ৪টি করে খাওয়াতে হবে ।

তবে সবটাই চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে। গ্লেনমার্ক সংস্থার দাবি, ইতিমধ্যেই ভারতের ১১টি এলাকায় ৯০ জন কম সংক্রমিত ও ৬০ জন মাঝারি করোনা সংক্রমিত ব্যক্তির উপর ওষুধটি প্রয়োগ করা হয়েছে ।

সংস্থা দাবি, এই ওষুধটি হালকা থেকে মাঝারি করোনা আক্রান্তদের চিকিত্সার ক্ষেত্রে ৮০ শতাংশ কার্যকারিতা প্রমাণ করেছে ।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে এটি কোনও ‘ম্যাজিক ড্রাগ’ নয়, ক্রমবর্ধমান পরিস্থিতির মধ্যে সহায়তা করতে পারে বিশেষ এই ওষুধ।

বিশেষজ্ঞরা আরও জানাচ্ছেন, করোনা সারাতে এটিই একমাত্র ওষুধ নয়, তবে রোগ সারাতে এই ওষুধটির কার্যকরী ভূমিকার প্রমাণ মিলেছে।

শালিমার বাগের ফোর্টিস হাসপাতালের পালমোনোলজি এবং স্লিপ ডিসঅর্ডার বিভাগের চিকিৎসক ডঃ বিকাশ মৌর্য বলেছেন, ‘বৃহত্তর পরিসরে পরিচালিত হলে এই ওষুধটির প্রকৃত কার্যকারিতা জানা যাবে।’সূত্র – হিন্দুস্থান টাইমস ।